কবিতাঃ ভু‌লে গি‌য়ে সব জীবন-মৃত্যুর হি‌সেব

কবি হারুন অর রশিদ

কবি হারুন অর র‌শিদের নতুন কবিতা ভু‌লে গি‌য়ে সব জীবন-মৃত্যুর হি‌সেব। কবিতাটি বিডিনিউজ ট্র্যাকারে প্রথম প্রকাশ করা হয়। কবিতাটি জীবন-মৃত্যুর হিসেব নিকেশের নানাদিক ফুটে উঠেছে।

ভু‌লে গি‌য়ে সব জীবন-মৃত্যুর হি‌সেব
হারুন অর র‌শিদ

                       হয়‌তো আ‌জিকার এই মৃত্যুপু‌রি‌তে
বিধাতার আ‌শির্বাদ আস‌তে আ‌রও কিছু‌দিন দে‌রি হ‌বে।
হয়তো ছি‌পি আটা গ‌লিপথ তালাপরা মু‌খোশ সহসাই ছো‌ড়ে ফে‌লে
বুক ভ‌রে নিঃশ্বাস নি‌তে পার‌বে না।
হয়‌তো আমার খেয়লী জীবনা‌তিপা‌তে
গত মাসা‌ধিক কালের অব‌রোধ আ‌রো দীর্ঘ হ‌বে।

ত‌বে তাই হোক- সব‌কিছু ভেঙে যাক, থে‌মে যাক,
সব‌কিছু লু‌কি‌য়ে পড়ুক
প্রস্তরকালের কোন আ‌দিম গুহার অন্ধকারে।
এমন হোক যেন-এ ধরায় জীবন ছিল না কখ‌নো,
মৃত্যুর মিছিল এতটাই দীর্ঘ হোক,
মৃত্যুগু‌লো এ‌তোটাই আতঙ্ক জাগাক,
যেন মৃত্যুই মৃত্যু‌কে ভয় পায়।
প‌ড়ে থাকুক শুধু ভয়ার্ত মুখ।

ছ‌ড়ি‌য়ে থাকুক ছিন্নমূল মানুষ, শত‌ছিন্ন হ‌য়ে।
সভ্যতা থে‌মে যাক অথবা ফি‌রে যাক আ‌দিম সম‌য়ে।
এভা‌বে সব‌কিছু শেষ হ‌লে প‌রে তু‌মি এ‌সো,
হা‌তে নি‌য়ে তোমার জাদুকা‌ঠি বাঁ‌শি।‌
তোমার ঠো‌টের কো‌ণে সে‌দিন তো‌লো জীবনের সুর।
তু‌মি আসার প‌রের ভো‌রেই তু‌মি আর আমি
নরম দুর্বাঘা‌সে পা ভেজাব শি‌শি‌রে।
তারপর হে‌টে যা‌বো

আ‌জিকার মৃত্যুপু‌রির প্রতি‌টি গ‌লিপথ ধ‌রে।
তোমার জীবন জাগা‌নিয়া বাঁশির সু‌রে
জে‌গে ওঠ‌বে প্রতি‌টি মৃত‌দেহ শতায়ু নি‌য়ে।
সকল আতঙ্ক প‌রিব‌র্তিত হ‌য়ে যা‌বে আগমনী বার্তায়।
আ‌দিগুহার অন্ধকার থে‌কে সবাই বে‌রি‌য়ে আস‌বে
হা‌তে হা‌তে এ‌কেক‌টি গোলাপ নি‌য়ে সবাই‌কে বরণ ক‌রে নি‌তে।

আর আ‌মি কথা দি‌চ্ছি-
সে‌দিন তু‌মি, আ‌মি এবং সবাই মি‌লে
জীবন-মৃত্যুর সব হি‌সেব ভু‌লে,
এককাপ ক‌ফির উষ্ণতা‌কে বিজয়ী ঘোষণা করব।

আপনার মন্তব্য

Leave a Reply