কোন দেশে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স কত

পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ ঘেটে দেখা গেল প্রায় সব দেশেই চাকরিতে প্রবেশসীমা ৩৫-৪৫ এর মধ্যে সীমাবদ্ধ। ব্যতিক্রম কেবল বাংলাদেশ আর পাকিস্তান।
পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ ঘেটে দেখা গেল প্রায় সব দেশেই চাকরিতে প্রবেশসীমা ৩৫-৪৫ এর মধ্যে সীমাবদ্ধ। ব্যতিক্রম কেবল বাংলাদেশ আর পাকিস্তান।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বিভিন্ন রকম৷ যেমন আমেরিকায় ৫৯ বছর বয়সেও একজন নাগরিক সরকারি চাকরিতে প্রবেশ করতে পারেন। আবার শ্রীলঙ্কা ও ইন্দোনেশিয়ায় সরকারি চাকরিতে সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৪৫ বছর। ভারতে এই বয়সসীমা ৩৫ থেকে ৪৫ বছর৷।

কিন্তু বাংলাদেশে সরকারি চাকরিতে আবেদনের সর্বোচ্চ বয়স ৩০ বছর। মুক্তিযোদ্ধা, চিকিৎসক আর বিশেষ কোটার ক্ষেত্রে এই বয়সসীমা ৩২ বছর। সরকারি ছাড়াও আধা সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানেও একই বয়সসীমা অনুসরণ করা হয়। আর চাকরি থেকে অবসরের  সাধারণ বয়সসীমা ৫৯ বছর। মুক্তিযোদ্ধাদের ক্ষেত্রে তা ৬০ বছর।

করোনাকালীন প্রণোদনা হিসেবে চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩২ বছর করার দাবিতে গত দুই মাসের বেশি সময় ধরে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছেন একদল চাকরিপ্রার্থী। তাদের একজন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী মোহাম্মদ তানভীর হোসেন।

তিনি বলেন, দেশে এখনও করোনার দ্বিতীয় ঢেউ চলমান এবং আরও দীর্ঘ হতে যাচ্ছে। করোনায় শিক্ষার্থীদের প্রায় দুই বছর জীবন থেকে অতিবাহিত হতে চলছে। সরকারের সকল প্রণোদনার পাশাপাশি মুজিববর্ষের ও স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তির বছরে আমরা বেকার যুবকরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট প্রণোদনা স্বরূপ সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩২ বছর করার দাবি জানাচ্ছি।

নিচে জেনে নেয়া যাক বিশ্বের কয়েকটি দেশের সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা।

ভারত
ভারতে রাজ্যভেদে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ থেকে ৪৫ বছর৷ পশ্চিমবঙ্গে চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৪০ বছর৷

শ্রীলংকা
দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়স ৪৫ বছর৷

তাইওয়ান
তাইওয়ানে বয়স সর্বোচ্চ ৩৫ বছর হলেও সরকারি চাকরিতে যোগ দেয়ার সুযোগ থাকে৷

ইন্দোনেশিয়া
ইন্দোনেশিয়ায় সরকারি চাকরিতে যোগ দেয়ার সর্বোচ্চ বয়স ৪৫ বছর৷

কাতার
মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৩৫ বছর৷

সুইডেন
সেখানে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের সুযোগ ৪৭ বছর পর্যন্ত থাকে৷

ফ্রান্স
ফ্রান্সে ৪০ বছর বয়স হলেও কেউ সরকারি চাকরি পেতে পারেন৷

ইতালি
ইতালিতে ৩৫ বছর পর্যন্ত কেউ সরকারি চাকরিতে প্রবেশ করতে পারেন৷

যুক্তরাষ্ট্র
যুক্তরাষ্ট্রে ৫৯ বছর বয়সেও একজন নাগরিক সরকারি চাকরিতে যোগ দিতে পারেন৷

কানাডা
এই দেশে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের সুযোগ ৪৭ বছর হলে শেষ হয়ে যায়।

পাকিস্তানঃ পাকিস্তানে প্রথম শ্রেনীর সরকারি ও গ্যাজেটেড জবের বয়সসীমা ৩০ বছর কিন্তু দ্বিতীয় ও তৃথীয় শ্রেণীর চাকরির বয়সসীমা রাখা হয়েছে ৪০ বছর।

বাংলাদেশ
বাংলাদেশে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৩০ বছর৷ সম্প্রতি সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩২ করার দাবি জানিয়েছেন চাকরিপ্রত্যাশীদের একাংশ৷ অথচ সহকারী বিচারক এবং বিসিএস স্বাস্থ্য তথা সরকারি ডাক্তারদের ক্ষেত্রে বয়সসীমা ৩২৷ বিভিন্ন কোটার ক্ষেত্রেও এই বয়সসীমা ৩২ বছর৷

পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ ঘেটে দেখা গেল প্রায় সব দেশেই চাকরিতে প্রবেশসীমা ৩৫-৪৫ এর মধ্যে সীমাবদ্ধ। ব্যতিক্রম কেবল বাংলাদেশ আর পাকিস্তান। বাংলাদেশের গড় আয়ূ যেহেতু পাকিস্তানের চেয়েও বেশি সময় এখন সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের। পাশের দেশ ভারতেও যেহেতু ৩৫ বছর বাংলাদেশও বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ বছরে উন্নীত করতে পারে।

Facebook Comments