দূর্দান্ত শতক হাঁকিয়ে জানিয়ে রাখলেন ফুরিয়ে যাননি আশরাফুল

২০২২ ডিপিএলে নিজের ৭ম ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছেন বাংলাদেশের প্রথম সুপারস্টার মোহাম্মদ আশরাফুল। বল হাতে ডিপিএলটা ভালোই কাটলেও ব্যাটহাতে কাঙ্খিত সাফল্য পাচ্ছিলেন না। অতঃপর নিরলস প্রচেষ্টার ফল পেলেন আশরাফুল। বিপিএলে সুযোগ না পেলেও অনেক আশা নিয়ে ডিপিএলে ভালো করার আশা করেছিলেন। তাকে ভালো সুযোগ ও করে দিয়েছিল ব্রাদার্স ইউনিয়ন টিম। অনেক বছর ব্রাদার্স ইউনিয়ন ডিপিএলে সুপার সিক্স এ সুযোগ পায়না। তাই অভিজ্ঞ আশরাফুল কে দিয়েছিল অধিনায়ক। পর্যাপ্ত সুযোগ পেয়েও নামের সাথে সুবিচার করতে পারে নাই আশরাফুল।
প্রথম ম্যাচেই শাইনপুকুরের সাথে ২৮১ রানের টার্গেটে ৩ উইকেটে ম্যাচ জিতলেও আশরাফুলের ছিল না কোনো অবদান। ১০ বলে মাত্র ৬ রান করে আউট হন। এরপর টানা ৫ ম্যাচেই হারে আশরাফুলের ব্রাদার ইউনিয়ন। দ্বিতীয় ম্যাচে আশরাফুল করেন ৯ বলে মাত্র ১ রান। ২০৭ রানের টার্গেটে দল হারে ৫৪ রানে।কিন্তু বল হাতে দারুণ করেন অধিনায়ক আশরাফুল। ১০ ওভারে মাত্র ২৩ রানে নেন ৫ উইকেট। তৃতীয় ম্যাচেই আশরাফুল করেন এই সিজনে তার ১ম হাফ সেঞ্চুরি।দলের বিপর্যয়ে করেন ৯৭ বলে ৫৫ রানের ইনিংস। যদিও এদিন ভুল এলবিডব্লুর শিকার হন তিনি।
চতুর্থ ম্যাচে আবারো ভুল এলবিডব্লুর শিকার হন আশরাফুল। ৩ বলে ০ রান করেন।তার দল হারে ৬ রানে।পঞ্চম প্রথম ম্যাচে ওপেন নামে আশরাফুল। শুরু থেকে মেরে খেলার চেস্টা করেন।১৭ বলে ১৭ করে আউট হন।তার দল হারে ১ রানে। ৬ষ্ঠ ম্যাচে ২ বলেই ০ রান করে বোল্ড হন আশরাফুল।তার দল হারে ৬ উইকেটে। আজ ৭ম ম্যাচেই আশরাফুল খেলেন হার না মানা অসাধারণ ১৩৯ বলে ১৪১* অপরাজিত ইনিংস।১৬ চার ও ১টি ছক্কার মার দেন আশরাফুল। কথায় আছে আশরাফুল ভালো খেললে ভালো খেলে দল।আজকে আবারো তার ঝলমলে ইনিংস দেখলো দেশবাসী। ইনিংসের ১ম ওভারেই ৫ বলে ০ করে ইমতিয়াজ আউট হলে মাঠে নামে মাইশুকুর। দুজনে দেখে শুনে খেলতে থাকে, ৯২ বলে ৬৮ রান করে মাইশুকুর আউট হন।তারপর মিনহাজুল আবেদিন ৩৮ বলে ৩০ করে আউট হন।
এরপর বিদেশি চাতুরাগাঙ্গা ডি সিলভা ২১বলে তার অর্ধশতক পুরণ করেন।আউট হওয়ার আগে ২৫ বলে ৫১ রান করেন সিলভা। লাস্ট ২ বল খেলে সোহাগ গাজী ১ বিশাল ছক্কায় ৬ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। আশরাফুল ৭৭ বলে ৫০ করলেও ১০০ রান করেন ১১০ বলে। ১০০ করেই আল্লাহর কাছে সিজদাহ্ করে শুকরিয়া আদায় করেন।শেষ পর্যন্ত ১৩৯ বলে ১৬টি চার আর ১ বিশাল ছক্কায় ১৪১* রানে অপরাজিত থাকলে তার দল ব্রাদার ইউনিয়ন ৪ উইকেটে ৩০৯ রানের বিশাল স্কোর পায়।৩১০ রানের টার্গেটে এখন ব্যাট করছে রুপগন্জ টাইগার।
Facebook Comments