নারী বিশ্বকাপে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া

গ্রুপ পর্বের ৭ ম্যাচেই জিতে টপ ১ এ থাকে অস্ট্রেলিয়া ।১ম সেমি ফাইনালে উইন্ডিজ নারী দলকে ডিএল ম্যাথডে ১৫৭ রানে পরাজিত করে অস্ট্রেলিয়ার নারী দল। এদিন অস্ট্রেলিয়ার নারী ওপেনার এলিসা হেলি ১০৭ বলে ১৭ চার ১ ছয়ে ১২৯ রানের বিশাল ইনিংস খেলে। ২য় সেমিফাইনালে সাউথ আফ্রিকা নারী দলের সাথে ১৩৭ রানের বিশাল জয় পায় ইংল্যান্ড নারী দল।ইংল্যান্ড নারী দলের ওপেনার ডি ওয়াট ১২ চারের সাহায্যে ১২৫ বলে ১২৯ রানের বিশাল ইনিংস খেলে। ২৯৪ রানের টার্গেটে মাত্র ১৫৬ রানেই অলআউট হয় সাউথ আফ্রিকা নারী দল।

ইংল্যান্ড নারী দলের সোপি ইসলেস্টন একাই নেন ৮ ওভারে ৩৬ রানে ৬ উইকেট। আজকে বাংলাদেশ সময় সকাল ৬.৩০ মিনিটে হাগলি ওভালে টস জিতে আগে বল করার সিদ্ধান্ত নেয় ইংল্যান্ড নারী দলের অধিনায়ক হেদার নাইট।ব্যাটিং এ নেমে উলন্ত সূচনা করে অস্ট্রেলিয়ার নারী দলের ২ ওপেনার। ৩০তম ওভারের ১ম বলে দলীয় ১৬০ রানে ১ম উইকেট পড়ে অস্ট্রেলিয়া নারী দলের।রিসাস হাইনেস ৯৩ বলে ৬৮ রানের ইনিংস খেলে আউট হন।১ ডাইনে নামা বেট মানি করেন ৪৭ বলে ৬২ রানের ইনিংস।

এদিন মূলত কাজের কাজ করেন ১ম সেমিফাইনালে হান্ড্রেড করা এলিসা হেলি। ১৩৮ বলে ১৭০ রানের বিশাল ইনিংস খেলেন তিনি।২৬টি চারের সাহায্যে এই রান করেন তিনি। হেলি টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ ৬৯ টি চার মারেন ও টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ ৫০৯ রান করেন।যা তাকে ফাইনালে ম্যাচ সেরা ও টুর্নামেন্ট সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত করে।ফাইনালে অস্ট্রেলিয়া নারী দল নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৩৫৭ রানের বিশাল টার্গেট দেয়।জবাবে শুরুতেই উইকেট হায়ায় ইংল্যান্ড নারী দল।

এদিন ব্যাট হাতে ৪ নম্বরে নামা নাটালি শিভার একাই লড়াই করেন। ১২১ বলে ১৫ চার আর ১ ছক্কায় ১৪৮ রানের বিশাল অপরাজিত ইনিংস খেললেও অন্য দের ব্যাটিং ব্যার্থতায় ৪৩.৪ ওভারে ২৮৫ রানেই গুটিয়ে যায় ইংল্যান্ড নারী দল।তাতেই ৭১ রানের বিশাল জয় পায় অস্ট্রেলিয়া নারী দল।এদিন তাহেলি মেগরা ও জেস জোনাসেন ৩টি করে উইকেট নেন।এটি অস্ট্রেলিয়া নারী দলের ৭ম ওয়ানডে বিশ্বকাপ জয়। এর পর বিজয়ের উল্লাসে মেতে ওঠে অস্ট্রেলিয়া নারী দল

Facebook Comments