ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম বর্ষের একজন শিক্ষার্থী  নিজ কক্ষে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। রাজশাহী জেলার চারঘাট থানার আবিদ বিন আজাদ (২১) নামে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী ‘আত্মহত্যা’ করেছেন। সোমবার (২৩ মে) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেইন গেটের পার্শ্ববর্তী ‘ব্রাদার্স হাউজ’ মেসের নিজ রুমে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

আবিদ বিন আজাদ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের ১ম বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। বিকেলে পাঁচটার দিকে আবিদের রুমের দরজা কেটে পুলিশ ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে।

জানা গেছে, আবিদ বন্ধুদের সঙ্গে সকালে ক্যাম্পাসে গিয়েছিলেন। ক্যাম্পাস থেকে ফিরে রুম ঢোকেন। বিকেলে তার রুমমেট বাইরে থেকে এসে ডাকাডাকি করেও কোনো সাড়াশব্দ পায়নি।

তাৎক্ষণিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে বিষয়টি জানানো হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে পুলিশ প্রশাসনকে খবর দেয় প্রক্টর। পুলিশ প্রশাসন এসে দরজা ভেঙে তার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়।

পরিবার ও মেসের রুমমেট জানান, আবিদের কোনো সমস্যা ছিল কি না আমরা বুঝতে পারিনি। সবকিছু ঠিকঠাক চলছিল। কীভাবে এ ঘটনা ঘটলো তারা হতবাক।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ‘এ রকম ঘটনা দুঃখজনক। পুলিশ এসে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে গেছে।’

ইবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়ায় পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তে জানা যাবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা।

আপনার মন্তব্য