রাজধানীর গুলশান-২ নম্বরের ১০৪ নম্বর রোডে ভবনে আগুন লাগার ঘটনায় মোহাম্মদ রাজু (৩৫) নামের আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। তিনি বাঁচার জন্য ভবনের ১২তলা থেকে লাফ দিয়েছিলেন।

রবিবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত ৩টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। ১২ তলা থেকে লাফ দেওয়ার পর গতকাল রাত ১০টার দিকে তাকে ঘটনাস্থলের কাছেই একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) তিনি মারা যান। এ নিয়ে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় দুজনের মৃত্যু হলো।

মোহাম্মদ রাজুর বাড়ি গাজীপুরের কালীগঞ্জে। তিনি ভবনের ১২তলায় এক কর্মকর্তার বাসায় বাবুর্চির কাজ করতেন।

নিহতের ভাই সজীব বলেন, তারা লাশ নিয়ে গ্রামে গেছেন। দাফনের প্রস্তুতি চলছে। মোহাম্মদ রাজু  ঢাকায় থাকতেন। তাঁর পরিবার গ্রামে থাকতেন। ভবনের ১২ তলায় তিনি দুই বছর ধরে কাজ করতেন। তার এক ছেলে ও এক মেয়ে আছে।
জানা যায়, আগুন লাগা ওই ভবনে ২৬ ফ্ল্যাটে ২৩ পরিবার বসবাস করতেন। নারী শিশুসহ ২৩ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৭ জনই নারী।

এর আগে গতকাল সন্ধ্যা ৬টা ৫৯ মিনিটের দিকে আগুনের ঘটনা ঘটে। উদ্বারে ফায়ার সার্ভিসের ১৯টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে। পরে আগুন নিয়ন্ত্রণ ও উদ্ধারে যোগ দেন সেনাবাহিনী, বিমানবাহিনী, পুলিশ, র‍্যাব ও স্বেচ্ছাসেবক সদস্যরাও। প্রায় চার ঘণ্টার চেষ্টায় রাত ১১টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

আপনার মন্তব্য