প্রধানমন্ত্রীর পর প্রথম টোল দিয়ে পদ্মা সেতু পার হয়ে ইতিহাসের অংশ হয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুজন শিক্ষার্থী। এজন্য তাদের কষ্টও কম করতে হয়নি। লক্ষ্য তাঁদের একটাই, সবার আগে স্বপ্নের পদ্মা সেতুতে ওঠা। সে লক্ষ্য পূরণে মোটরসাইকেল নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী রাত ১২টায় রওনা হন পদ্মা সেতুর উদ্দেশে। দেড় ঘণ্টায় চলে আসেন মাওয়া টোল প্লাজার কাছে। কিন্তু পদ্মা সেতুতে ওঠার জন্য টোল প্লাজার দুই কিলোমিটার এলাকাজুড়ে তখন কয়েক শ যানবাহন। মহাসড়কে একপ্রকার যুদ্ধ করেই এসব যানবাহনকে টপকে সেতুতে ওঠার জন্য তাঁরা দুজন টোল দেন ভোর ৫টা ৫১ মিনিটে। তাঁদের টোল টোকেন নম্বর ছিল ০০০১।

মোটরসাইকেল নিয়ে স্বপ্নের সেতুতে সবার আগে ওঠার দাবি করা দুই শিক্ষার্থী হলেন চৌধুরী শামীম আফফান ও জালাল উদ্দিন। তাঁরা দুজনই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের স্নাতকোত্তরের ছাত্র। থাকেন মাস্টারদা সূর্যসেন হলে। চৌধুরী শামীম আফফানের গ্রামের বাড়ি মাদারীপুর শহরে, জালালের বাড়ি পাবনা জেলায়।

দুই বন্ধু ১৫ মিনিটে পদ্মা সেতু পার হয়ে জাজিরা প্রান্তে আসেন। এই বিশেষ মুহূর্তকে স্মরণীয় করে রাখতে সেতুর সঙ্গে নিজেদের ছবি তুলেছেন, ভিডিও করেছেন। স্বপ্নের সেতুতে প্রথমবার সবার আগে উঠতে পেরে তাঁরা দুজন খুব খুশি।

আপনার মন্তব্য