ফয়জুল করীমের ওপর হামলার খবরে বরিশালে বিক্ষোভ

বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হাতপাখা প্রতীকের প্রার্থী মুফতি ফয়জুল করীমের ওপর নৌকার কর্মীদের হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছে ইসলামী আন্দোলনের কর্মীরা। সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে এয়ারপোর্ট থানার কাশিপুর এলাকায় তারা বিক্ষোভ করেন।

ফয়জুল করীমের ওপর হামলার খবর ছড়িয়ে পড়লে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কয়েক শ নেতা-কর্মী শহরের দুটি স্থানে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন।

দলটির বিপুল সংখ্যক কর্মী-সমর্থক বরিশাল নগর অভিমুখে রওনা হয়েছেন। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দপদপিয়া সেতু বন্ধ করে দেওয়ায় তারা শহরে প্রবেশ করতে পারেনি। তারা সেতুর অপরপ্রান্তে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে জড়ো হয়েছেন।

আন্দোলনকারীরা বলেন, মুফতি ফয়জুল করিমের ওপর প্রকাশ্যে হামলা হয়েছে। আমরা হামলাকারীদের প্রকাশ্যে বিচার চাই।

এ ছাড়া দলটির পক্ষ থেকে বেশ কিছু অভিযোগ তোলা হয়েছে। অভিযোগগুলোর মধ্যে রয়েছে- ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নেতা-কর্মীদের ওপর হামলা-মারধর-হয়রানি, পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্রে ঢুকতে না দেওয়া, কেন্দ্র থেকে এজেন্টদের বের করে দেওয়া, ভোটারদের বাধা দেওয়া, জোরপূর্বক ভোট।

এয়ারপোর্টে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হেলাল উদ্দিন বলেন, ইসলামী আন্দোলনের কর্মীরা সড়কে বিক্ষোভ করেছে। তাদের বুঝিয়ে শান্ত করা হয়েছে। কাশিপুরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

বরিশালে হাত পাখা প্রতীকের মেয়রপ্রার্থী মুফতি সৈয়দ মোহাম্মদ ফয়জুল করীমের ওপর ভোটকেন্দ্রে হামলার ঘটনা ঘটে। কেন্দ্রে পরিদর্শনকালে নৌকা প্রতীকের কর্মীরা তাকে মেরে রক্তাক্ত করেছেন বলে অভিযোগ জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলনের এই মেয়রপ্রার্থী।