ফিনালিসিমার শিরোপা জিতে বিশ্ব রেকর্ডের আরও কাছে মেসি

ফিনালিসিমার শিরোপা জিতে বিশ্ব রেকর্ডের আরও কাছে চলে গেছেন লিওনেল মেসি।  প্রায় দুই দশক দীর্ঘ ক্যারিয়ারে দলীয় শিরোপা কম জেতেননি লিওনেল মেসি। তার সবশেষটা জিতলেন গত রাতে। ইতালিকে উড়িয়ে দিয়ে আর্জেন্টিনার হয়ে জিতলেন ফিনালিসিমা। এর ফলে তার জেতা সর্বমোট শিরোপার সংখ্যা দাঁড়াল ৪০-এ। যা তাকে নিয়ে গেছে বিশ্বরেকর্ডের আরও কাছে।

গত রাতে ওয়েম্বলিতে অনুষ্ঠিত ফাইনালে আর্জেন্টাইন অধিনায়ক দারুণ এক ম্যাচই কাটিয়েছেন। শুরু থেকেই ছিলেন সপ্রতিভ। গোল করতে না পারলেও করিয়েছেন দুটো। তার প্রথমটা ম্যাচের গতিপথই বদলে দিয়েছিল। এরপর সুযোগ তৈরি করেছেন, বল জিতেছেন, আটকেছেন প্রতিপক্ষের আক্রমণ। চেষ্টা করেছেন গোলেরও, তবে জিয়ানলুইজি ডনারুমার অতিমানবীয় পারফর্ম্যান্সের সামনে আটকে গেছে তার সব চেষ্টা, ফলে গোল আর পাওয়া হয়নি তার।

তবে ম্যাচে যা করেছেন, তাতে সেরার পুরস্কারটা উঠেছে তার হাতেই। তবে মেসি যার মূল্য দেন সবচেয়ে বেশি, সেই দলীয় শিরোপাটা হাতে উঠেছে একটু পরই। এরপরই মেসি মেতেছেন উল্লাসে, যোগ দিয়েছেন সতীর্থরাও।

এই শিরোপাজয়ের ফলে মেসির ক্লাব ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে শিরোপার সংখ্যা ৪০ ছুঁলো। এই শিরোপার ৩৫টি জিতেছেন বার্সেলোনাকে নিয়ে। কাতালানদের হয়ে তিনি জিতেছেন ১০টি লিগ, আটটি স্প্যানিশ সুপার কাপ, ৭টি কোপা দেল রে, ৪টি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, তিনটি করে ক্লাব বিশ্বকাপ ও উয়েফা সুপার কাপ। ক্লাব পর্যায়ে আরও একটি শিরোপা জিতেছেন তিনি, সদ্যসমাপ্ত মৌসুমে তার নতুন দল পিএসজির হয়ে জিতেছেন লিগ আঁর শিরোপা।

জাতীয় দলের হয়ে তার শিরোপার সংখ্যা ৪টি। ২০০৫ সালে নেদারল্যান্ডসে ফিফা অ-২০ বিশ্বকাপ জিতে শুরু করেছিলেন মেসি, এরপর ২০০৮ সালে অলিম্পিক গেমসে নাইজেরিয়াকে হারিয়ে জিতেছিলেন অলিম্পিক সোনা। গেল বছর কোপা আমেরিকা জিতে আর্জেন্টিনার ২৮ বছরের দীর্ঘ ‘মেজর’ শিরোপাখরা কাটান তিনি, এরপর গত রাতে জেতেন এই ‘ফিনালিসিমা’। তাতেই সংখ্যাটা ছোঁয় ৪০-এর ঘর।

এর ফলে সাত বারের ব্যালন ডি’অর বিজয়ী দলীয় শিরোপা জেতার বিশ্বরেকর্ডের খুব কাছে চলে এসেছেন। তার বন্ধু ও সাবেক সতীর্থ দানি আলভেস ৪৬টি শিরোপা জিতে বর্তমানে এই রেকর্ড রেখেছেন নিজের দখলে। ক্লাব আর জাতীয় দল মিলিয়ে আর ছয়টি শিরোপা হলেই আলভেসকে ছুঁয়ে ফেলবেন মেসি।