মনিরুল ইসলাম বাদলের নতুন কবিতা ‘বৃদ্ধাশ্রম বিলাস’

সৃষ্টিশীল কবি ও লেখক মনিরুল ইসলাম বাদলের নতুন কবিতা প্রকাশিত হয়েছে। কবিতার নাম ’ বৃদ্ধাশ্রম বিলাস ‘। বিডিনিউজ ট্র্যাকারের সাহিত্য পাতায় কবিতাটি প্রথম প্রকাশিত হয়। কবিতায় কবি তার নিজ অভিজ্ঞতার আলোকে বিদ্ধাশ্রম বিলাসের নানাদিক ফুটিয়ে তুলেছেন।

  বৃদ্ধাশ্রম বিলাস
-মনিরুল ইসলাম বাদল


কতো দিন ধরে, হৃদ মাঝারে, হয় না যে বেচা কেনা
স্মৃতির দুয়ারে, দেখি ঘুরে ফিরে, কিসের আনাগোনা
ছোট্ট বেলাতে, পাঠশালাতে, চলতো কি যে লেখাপড়া
দোয়াত কলমে, তালপাতার তালিমে, দক্ষ কারিগর গড়া

বাপ দাদার আমলে, বলতো সকলে, সন্তান ছেড়ো না দূরে
রেখো চোখে চোখে, দেখুক জগতটাকে, তোমার মতো করে
ঘর ভরতি সন্তান, হৈ চৈ সবখান, হাসি কান্নায় কথা বলি
এলে মেহমান, খুশীতে আটখান, কানামাছি খেলা খেলি

প্রবাস জীবন, করে না আকর্ষন, থাকি এক ছাতার নীচে
গোলা ভরা ধান, হালের গরু চারিখান, পুকুর ভরা মাছে
জোটে যদি অন্নবাস, কেন তবে পরবাস, সহজ সমীকরন
সংসারে সুখে দুঃখে, রইবো একসাথে, আমৃত্যু আজীবন

সময়ের বিবর্তনে, বিচিত্র কারনে, চিন্তায় যতো পরিবর্তন
হতে হবে বড়, অর্থ বিত্ত গড়ো, প্রানের আকুতি বিসর্জন
বিদেশে শিক্ষা, নিতে হবে দীক্ষা, ছুটে সবে দেশ বিদেশে
আমেরিকা-কানাডা, পেলে ভিসাটা, স্বপ্নে উড়ে আকাশে

অষ্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড, হলে পারমেন্যান্ট, জীবন যেন ধন্য
ভিন্ দেশে বাস, নিজ দেশে পরবাস, ঘুমন্ত বিবেক অনন্য!
বাবা মা’র বড়াই, সন্তান বিদেশ সবাই, ক্যারিয়ার নিয়ে ব্যস্ত
কেহ ডাক্তার, কেহ বা ব্যারিস্টার, নামে যশে সদা তটস্থ

অদ্ভুত রোগে আক্রান্ত, গতিপথ বিভ্রান্ত, তবুও সে পথে চলা
জীবিকার লড়াই, দেখি মোরা সবাই, সাঙ্গ কি হয় খেলা!
দিনে দিনে বাড়ে দিন, প্রতিক্ষায় অমলিন, বৃদ্ধ পিতা মাতা
সন্তানের আবাস, দুর পরবাস, ফিরে আসার নেই বারতা

কাজের ব্যস্ততা, ছুটি পায় কোথা, পেশা নিয়ে যতো ভাবনা
ভাইবার-ম্যাসেন্জারে, কথা-বার্তা সারে, সংযত করে বাসনা
খুঁজে ফিরে সান্তনা, ভালো আছে মনা, বুকে চাপা যন্ত্রনা
নিঃসঙ্গ জীবনে, ছন্দহীন প্রানে, শেষ জীবনের যাতনা

ঘর ভড়া কোলাহল, আজিকে অচল, একান্নবর্তী পরিবার
আপন ঘরে বাস, যেন পরিহাস, নির্বাক যেন জগত সংসার
এ যুগের ফ্যাশন, বিদেশে বসত গড়ন, দেখি চক্ষু মিলে
পরবর্তী জেনারেশন, হবে যে কেমন, ভাবি বসে নিরালে
যৌথ পরিবার, বিলুপ্ত চারিদার, সময়ের একি পরিক্রম
নিজ গৃহে সবে, গড়ে বুঝি নিরবে, এক একটি বৃদ্ধাশ্রম!

Facebook Comments