মির্জাপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলনকে ঘিরে পদপ্রত্যাশীদের দৌড়ঝাপ

আগামী ৩রা জুন মির্জাপুর উপজেলা আওয়ামী সেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন কে সামনে রেখে পদপ্রত্যাশীরা দৌড়ঝাপ শুরু করেছেন। সভাপতি হিসাবে প্রার্থী হয়েছেন সাবেক জেলা ছাত্রলীগ নেতা মারুফ রহমান। মরহুম পিতা বীর মুক্তিযুদ্ধা নূর মোহাম্মদ ছিলেন স্বাধীনতা পরবর্তী মির্জাপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ অন্যতম সংগঠক। পারিবারিক সূত্রে স্কুল জীবন থেকেই আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িয়ে পড়েন মারুফ রহমান। সরেজমিনে খোঁজ নিয়ে জানা যায় মির্জাপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি পদের একক প্রার্থী হিসেবে  বেশ আগে থেকেই আলোচনায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মারুফ রহমান। অন্যদিকে সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য আলোচনায় আছেন পোস্টকামুরী গ্রামের সবুজ মিয়া।

পরবর্তীতে মির্জাপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং টাঙ্গাইল জেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য হিসেবে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমান এ টাঙ্গাইল জেলা দায়রা জজ আদালত এ শিক্ষানবিশ আইনজীবী হিসেবে কর্মরত আছে।

এ ছাড়াও একাধিক সামাজিক সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত আছেন তিনি। ইউনিয়ন পাড়া ইয়ুথ ক্লাব ,মির্জাপুর ব্লাড এসোসিয়েশন ইত্যাদি। ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি আইন অনুষদ থেকে ২০১৭ সালে এলএলবি (অনার্স ) সম্পর্ণ করা মারুফ বিডিনিউজ ট্র্যাকারের মির্জাপুর প্রতিনিধিকে জানান-’আমি আওয়ামী পরিবারের সন্তান । আমার বাবা মির্জাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের একজন নিবেদিত প্রাণ ছিলেন। পিতার আবেগ, অনুভূতির এই সংগঠনের জন্য কিছু অবদান রাখতে পারলেই নিজেকে ধন্য মনে করবো। আমার বিশ্বাস সিনিয়র নেতৃবৃন্দ সঠিক সিদ্ধান্তই নেবেন। তবে এটুকু বলতে পারি আমি যদি সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হই আমি আমার শতভাগ উজার করে দিয়ে মির্জাপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগকে আরও সুসংগঠিত করতে কাজ করে যাবো।’