সিরাজগঞ্জে ভালোবাসা দিবসে ফুলের চাহিদা কম থাকায় ফুল বিক্রেতার মাথায় হাত

0
26

সিরাজগঞ্জে ১৪ ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক ভালোবাসা দিবস ও বসন্ত উৎসব ঘীরে ফুলের চাহিদা কম থাকায় ফুল বিক্রেতার মাথায় হাত। বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারী) বিকেলে সিরাজগঞ্জ শহর এ্যাডভোকেট কর্নারে ঐতিহ্যবাহী চমক ফুল ঘর ও রাজা ফুল ঘরে গত বছরের তুলনায় চলতি বছরে ফুল বিক্রেতাদের তেমন দেখা যায় নাই। তবে ধারণা করা হয়েছে ১৪ ফেব্রুয়ারী একই দিনে ভালোবাসা দিবস, সরস্বতী পূজা ও আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারী এসএসসি পরীক্ষার জন্য তুলনামূলকভাবে ফুল বিক্রি কম হয়েছে। এতে খুচরা ফুল ব্যবসায়ীর লাভ উপেক্ষা লসের সম্ভাবনা রয়েছে। সরজমিনে ফুলের বাজার ঘুরে দেখা যায়, এ বাজারে মেন্ডেরা গোলাপ বিক্রি হচ্ছে প্রতি পিস ৩০-৪০ টাকা, ক্যাপ গোলাপ ৪০-৫০ টাকা, চায়না গোলাপ প্রতি পিস ৪০ টাকা, গ্লাডিওলাস প্রতি পিস ২০-২৫ টাকা, জারবেরা প্রতি পিস ১৫-১৬ টাকা, রজনীগন্ধা  ১৫-২০ টাকা, হাত তোরা ৭০ টাকা, গাদা প্রতি হাজার ৩০০-৮০০, চন্দ্রমল্লিকা প্রতি পিস ৩-৫ টাকা। ফুলের দাম স্বাভাবিক থাকলেও নেই ক্রেতা। ভালোবাসা দিবস ও বসন্ত উৎসবকে কেন্দ্র করে বেশিরভাগ ফুল বিক্রেতা লসের মুখে। ফুল বিক্রেতা আব্দুল আলীম ও রতন বলেন, সিরাজগঞ্জ জেলার সকল উপজেলায় মোট ৩০ লক্ষ টাকার ফুল বিক্রি লক্ষমাত্রা থাকলেও আজকে মোট ১৫ লক্ষ টাকার ফুল বিক্রি হওয়ার সম্ভাবনা নেই। আজ ভোর থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত ২৫-৩০ হাজার টাকা ফুল বিক্রি করেছি। এ বছরে গত বছরের তুলনায় ফুলের চাহিদা কম থাকায় লস হয়েছে আমাদের।

আপনার মন্তব্য