আমরা লজ্জা পাচ্ছি, ফুটবলাররা লজ্জা পাচ্ছে কি?

আমরা লজ্জা পাচ্ছি, ফুটবলাররা লজ্জা পাচ্ছে কি? একটা সময় বাংলাদেশ দল নিয়মিত প্রীতি ম্যাচ খেলতো নেপাল, ভুটান, মালদ্বীপের সঙ্গে। তাদের ফুটবলের মান উন্নত হওয়ায় যখন তাদের সাথেও হারা শুরু করলাম তখন বাফুফে আরও নিচু মানের দলের দিকে গেলো। আমাদের বাংলাদেশই আছে তালিকার অনেক নিচে, সেই আমাদের নিচের দল সিশেলসের সাথে এবার প্রীতি ম্যাচ খেললাম আমরা। দুই ম্যাচ মিলে একটা গোলও করতে পারেনি আমাদের ফরোয়ার্ডরা। প্রথম ম্যাচে যে গোলটা হলো সেটাও ভাগ্য সহায়তায় পাওয়া। সাজানো গুছানো কোনো আক্রমণে নয়।

এই দুই ম্যাচকে সামনে রেখে বেশ লম্বা সময় ক্যাম্পের আয়োজন করে বাফুফে। খেলা সিলেট হলেও সৌদি আরবে ক্যাম্পও করে তারা। দেশে খেলা, বিদেশ কেনো ক্যাম্প করছে সেটা আজকে বাদ ই রাখলাম। এতটুকু তো সত্যি ফুটবলারদের বিদেশ নিয়ে অনুশীলন করিয়েছে, ভালো মানের হোটেলে রাখছে, সুযোগ সুবিধা দিয়েছে। লাখ লাখ টাকা খরচ করে তারা ১৯৯ নম্বর স্থানে থাকা একটা অপেশাদার দলের সাথে একটা গোলও করতে পারে নাই। প্রথম ম্যাচের গোলের কথা উপরে ব্যাখ্যা করা আছে।

১৯৯ নম্বর দলের সঙ্গে প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য বাফুফে যথেষ্ট করেছে বলেই আমি মনে করি। তাদের হারানোর জন্য এর চেয়ে বেশি সুযোগ সুবিধা দেওয়ার মতো কিছু নেই। এরপরও তাদের কাছে হারা চরম লজ্জার চেয়েও লজ্জাজনক। আমাদের ফুটবলারদের মাথায় যে কিছুই নেই সেটি আবারও প্রমাণ হলো। অথচ জাতীয় দলের অধিকাংশ ফুটবলারই লিগে ৪০-৭০ লাখ টাকার পেমেন্টে খেলে থাকে।

এত লাখ লাখ টাকা খরচ করে আমাদের প্রাপ্তি শূন্য। ফুটবলারদের প্রাপ্তি বিমানবন্দরে ছবি তোলা, বিমান ভ্রমণ, সুন্দর সুন্দর ব্যক্তিগত ছবি তোলা, শপিং করা। বাফুফের এখন উচিত প্রতিটা ফুটবলারকে জবাবদিহিতার আওতায় আনা। লাখ টাকা খরচ করে তাদের অনুশীলন, সুযোগ সুবিধা দিয়ে যদি সিশেলসকে হারাতে না পারে তাহলে এই ফুটবল দল রাখার কোনো প্রয়োজন নেই।

আমাদের ফুটবলারদের লজ্জা থাকা উচিত। বাফুফে চরম ব্যর্থ ঠিক আছে। কিন্তু ফুটবলাররা পারেটা কি? ঘরের মাঠে সিশেলসকে হারাতে পারলো না? এইটুকুতে ফুটবলারদের বুঝা উচিত তারা যে ঘরোয়া লিগে ৪০-৭০ লাখ টাকা পেমেন্ট নেয় সেটার নূন্যতমও যোগ্যতা তাদের নেই। শুধু শুধু ফুটবলারদের দাম বাড়ছে, খেলার মান বাড়েনি ১% ও। ভবিষ্যতে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ হতে পারে যে দলগুলো শ্রীলঙ্কা (২০৭ র‍্যাংকিং), গুয়াম (২০৫ র‍্যাংকিং), ইউ এস ভার্জিন আইসল্যান্ড (২০৮ র‍্যাংকিং) ও ব্রিটিশ ভার্জিন আইসল্যান্ড (২০৯ র‍্যাংকিং)।

কার্টেসিঃ বাংলাদেশ ফুটবল লাইভ